Also read in

বরাক উপত্যকার এক বাড়িতে সশস্ত্র ডাকাতদের লুট: স্থানীয়দের মধ্যে আতঙ্ক

 

বরাক উপত্যকার এক বাড়িতে ডাকাতরা দল বেঁধে লুটপাট করে। জানা যায়, তিনটি বন্দুক, ছুরি, তরোয়াল নিয়ে সজ্জিত প্রায় আট থেকে দশ জনের একটি ডাকাত দল ওই বাড়িতে প্রবেশ করে লুটপাট চালায়। এই ভয়ংকর ঘটনাটি ঘটেছে সোনাইয়ে অবস্থিত শিলডুবি-কালিবাড়ি রোডে।

ঘটনায় প্রকাশ, গতকাল রাত প্রায় দুটোর সময় ডাকাতরা পিকলু চৌধুরী নামের ওই স্থানের এক বাসিন্দার ঘরে প্রবেশ করে লুটপাট চালায়। তার বক্তব্য অনুসারে জানা যায়, ডাকাতরা তার বাড়ি এবং বাড়ির পাশেই অবস্থিত তার দোকান লুট করে। পিকলু চৌধুরীর মতে, ডাকাত দলে প্রায় ১২ জন সদস্য মুখোশ এবং কালো পোশাক পড়েছিল। তিনি আরো জানান যে তাদের মধ্যে দুজনের মুখ মুখোশ থেকে বেরিয়ে এলে তিনি তাদের সনাক্ত করতে সমর্থ হয়েছেন। দোকান ঘর এবং বাড়ি লুট করার পর ডাকাতরা তার বাড়িতে থাকা একটি টাটা সুমোতে উঠে পালিয়ে যায়।

ঘটনায় আরও জানা যায়, স্থানীয় বাসিন্দারা পিকলু চৌধুরী এবং তার পরিবারের সদস্যদের চিৎকার শুনে তার বাড়িতে জড়ো হন। এমনকি তারা এও লক্ষ্য করেন যে সাদা গাড়িটি দ্রুত বেগে বেরিয়ে যায়। চৌধুরীর অনুমান অনুসারে, ডাকাত দলটি প্রায় ৩ লক্ষ টাকা এবং বহু মূল্যবান সামগ্রী লুট করেছে।

খবর পেয়ে শিলচর সদর থানার এসআই আনন্দ মেধি’র নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল স্নিফার কুকুর নিয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। সর্বশেষ পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, পুলিশ এখনও কাউকে গ্রেফতার করতে সমর্থ হয়নি। তবে তদন্ত চলছে এবং শীঘ্রই তারা দোষীদের গ্রেফতারের চেষ্টা করছে বলে পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়।

এদিকে এ ধরনের সাংঘাতিক ঘটনার ফলে জনমনে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। অনেকে সুরক্ষা ব্যবস্থা তথা নাগরিকের নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন।

Comments are closed.