Also read in

শিবালিক পার্কে রাস্তার পাশে মিলল শিশুর কাটা পা, এলাকায় চাঞ্চল্য

মেহেরপুরের শিবালিক পার্কে সোমবার বিকেলে একটি শিশুর কাটা পা পাওয়া গেছে। এলাকাবাসীরা জানিয়েছেন, তারা হঠাৎ করে দেখতে পান একটি কুকুর মানব-শিশুর পায়ের অংশ মুখে নিয়ে ঘুরছে। তারা কুকুরটিকে তাড়িয়ে পুলিশকে খবর দেন। পুলিশ এসে কাটা পায়ের টুকরো উদ্ধার করে শিলচর মেডিক্যাল কলেজে পাঠিয়ে দেয়। এতে এলাকায় চাঞ্চল্য দেখা দিয়েছে।

রাঙ্গিরখাড়ি থানার ইনচার্জ পিকে ডেকা খবর পেয়ে তার বাহিনী নিয়ে সেখানে উপস্থিত হন। এলাকাবাসীর সঙ্গে কথা বলেন এবং পায়ের টুকরোটি উদ্ধার করেন। তিনি বলেন, “যেহেতু কুকুরের মুখে পাওয়া গেছে, তাই ঠিক কোথা থেকে টুকরোটি নিয়ে এসেছে সেটা পরিষ্কার নয়। এলাকা থেকে শিলচর মেডিক্যাল কলেজ খুব একটা দূরে নয়, সেখানে মারা যাওয়া কোনও শিশুর পায়ের অংশ কুকুরটি নিয়ে এসেছে কিনা সেটা দেখতে হবে। এছাড়া সম্প্রতি কোনও শিশু নিখোঁজ হয়েছে কি না, সেটাও যাচাই করে দেখা হচ্ছে। কাটা পায়ের অংশটি ময়না তদন্তের জন্য শিলচর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।”

শিবালিক পার্ক ডেভেলপমেন্ট কমিটির পক্ষ থেকে দেবাশীষ পাল জানিয়েছেন, সোমবার বিকেলে এলাকার মানুষ হঠাৎ করে দেখতে পান একটি কুকুর বড় মাংসের টুকরো নিয়ে ঘোরাফেরা করছে। একটু এগিয়ে যেতেই তারা বুঝতে পারেন এটি মানুষের শিশুর পা। এতে তারা আঁতকে উঠেন, কোনোক্রমে কুকুরটিকে আটকাতে সমর্থ হন এবং আমাদের খবর দেন। আমরা সঙ্গে সঙ্গে পুলিশের কাছে খবর পাঠাই এবং তারা এসে নিয়ে যান। তবে এমন ভাবে রাস্তার পাশে মানুষের শিশুর পা পাওয়া যাওয়ায় এলাকায় চাঞ্চল্য দেখা দিয়েছে। আমরা নিজেদের মতো খোঁজার চেষ্টা করেছি, এলাকার কোনও শিশু মারা গেছে কিনা অথবা কেউ নিখোঁজ রয়েছে কিনা। পুলিশ বলছে এটি শিলচর মেডিক্যাল কলেজের দিক থেকেও কুকুরটি নিয়ে আসতে পারে।

শিবালিক পার্ক এলাকায় কিছুদিন ধরে অপরাধমূলক কার্যকলাপ অনেক বেশি বৃদ্ধি পেয়েছে। একসময় প্রায় তিরিশটি চুরি হয়েছে এলাকায়, চোরের দল ঘর ভাড়া করে থেকে তাদের কার্যকলাপ চালাচ্ছিল। এলাকাবাসীরা সেগুলো তথ্য পুলিশের কাছে তুলে ধরেন এবং চোরেরা পালিয়ে যায়। এছাড়া গভীর রাতে মিজোরামগামী ট্রাক শিবালিক পার্ক হয়ে দ্রুতগতিতে বেরিয়ে যাওয়ার ঘটনা ঘটছে। এবার দিনের আলোয় একটি মানব-শিশুর কাটা পা উদ্ধার হওয়ায় এলাকার মানুষ রীতিমতো আতঙ্কিত।

Comments are closed.