Also read in

বরাক উপত্যকায় ২৪ ঘন্টায় কোভিড আক্রান্ত ১৫০ জন, শিলচর মেডিকেল কলেজে মৃত আরও চার

বৃহস্পতিবার শিলচর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে কোভিদ ওয়ার্ডে ২৮ জন রোগী সংকটাপন্ন অবস্থায় ছিলেন। মেডিকেল বুলেটিন অনুযায়ী শুক্রবার সংকটাপন্ন রোগীর সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৩৪। এর মধ্যে কেবল ১৬ জনকে আইসিইউতে জায়গা দেওয়া সম্ভব হচ্ছে।

শুক্রবার আরো চারজন শিলচর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে কোভিদ ওয়ার্ডে প্রাণ হারিয়েছেন। এদের মধ্যে করিমগঞ্জ জেলার দুইজন ২১ বছরের যুবক তপু নাথ এবং ৬২ বছরের বৃদ্ধ প্রমোদ দাস রয়েছেন। শিলচরের দুইজন হলেন, লিংক রোডের ৮২ বছরের বৃদ্ধ শ্রীকান্ত চক্রবর্তী এবং তারাপুর এলাকার ৭৫ বছরের বৃদ্ধা বাসন্তী বালা দাস।

শিলচর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের কোভিড চিকিৎসার জন্য আইসিইউ এর সংখ্যা বাড়ানোর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে, কাজ চলছে। হাইলাকান্দি এবং করিমগঞ্জ সিভিল হাসপাতালে ও আইসিইউ স্থাপনের জন্য যন্ত্রপাতি এসে পৌঁছেছে।

স্বাস্থ্য দপ্তর থেকে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী শুক্রবার কাছাড় জেলায় ৭৬ জন এর দেহে নতুন করে কোভিড সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। এরমধ্যে ৬৪ জন রেপিড টেস্টের মাধ্যমে শনাক্ত হয়েছেন। করিমগঞ্জ জেলায় শুক্রবার ৪৯ জনের দেহে করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ে। তবে সুখের কথা, সংক্রমণ ছাপিয়ে সুস্থতার সংখ্যা বেশি; গতকাল সুস্থ হয়ে ৬৪ জন রোগী বাড়ি ফিরে গেছেন। তুলনামূলকভাবে হাইলাকান্দি জেলায় সংক্রমণ কম হচ্ছে। শুক্রবার ও জেলায় ২৫ জনের দেহে কোভিড সংক্রমণ ধরা পড়ে।

Comments are closed.