Also read in

ত্রিপুরায় আক্রান্ত সাংসদ সুস্মিতা দেব , তৃণমূলের প্রচার ভ্যান ও ভাঙচুর

তৃণমূল কংগ্রেসের রাজ্যসভার সাংসদ সুস্মিতা দেব এবং তার সহযোগীরা ত্রিপুরায় আজ আক্রান্ত হয়েছেন; আজ শুক্রবার দুপুরে রাজ্যের রাজধানী আগরতলার কাছে বিজেপি সমর্থিত গুন্ডারা এই হামলা চালায় বলে অভিযোগ। কথিত হামলায় তৃণমূলের সদ্য চালু হওয়া প্রচার ভ্যানে ও ভাঙচুর করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে রাজ্যের রাজধানী আগরতলা থেকে কয়েক কিলোমিটার দূরে আমতলীতে।

সুস্মিতা দেব বলেন, “আমরা আমতলী বাজারে স্থানীয় ব্যবসায়ীদের সঙ্গে আলাপ আলোচনা করছিলাম। অনুষ্ঠান শেষ হওয়ার পর হঠাৎ তিন চারজন লোক আমাদের পেছন থেকে আক্রমণ করে এবং আমাদের কর্মীদের রাস্তার ডিভাইডার দিয়ে মারতে শুরু করে।” আমার গাড়ি থেকে নামলে তারা আমার ব্যাগ এবং মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে। দেব আরও অভিযোগ করেন যে, হামলাকারীদের মুখ ঢাকা ছিলনা এবং তারা আমাদের সিআরপিএফের সামনে মারধর করছিল। তিনি আরও বলেন, “যেভাবে আমাদের উপর হামলা করা হচ্ছে তা স্পষ্টভাবে ইঙ্গিত করে যে, হামলাকারীরা রাজনৈতিক শক্তির দ্বারা সমর্থিত ছিল, অন্যথায় তারা আমাদের প্রকাশ্যে মারতে পারত না।”

সুস্মিতা দেব দাবি করেন, “বিজেপি বলেছে সিপিআই-এম তাদের প্রধান প্রতিপক্ষ, কিন্তু মাঠে তারা আমাদের আক্রমণ করছে, যাতে প্রমাণিত হয় যে টিএমসি এগিয়ে রয়েছে।”

আমতলী থানার ডেপুটি সুপার অনির্বাণ দাস নিশ্চিত করেছেন যে, ঘটনাটি আমতলীতে দুপুর দেড়টা নাগাদ ঘটে এবং ভাঙচুরের খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে ছুটে যায়। দুটি এসইউভি (স্করপিও) উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়। আমতলী পুলিশ স্টেশন ঘটনাটি সম্পর্কে লিখিত অভিযোগ ও পেয়েছে। “আমরা এই অভিযোগটি নথিভুক্ত করব এবং আরও তদন্ত করা হবে,” ডেপুটি সুপার বলেন। অনির্বাণ দাস জানান, “তিন জন সামান্য আহত হয়েছেন।”

ত্রিপুরা তৃণমূল কংগ্রেস টুইটারে ও এই ঘটনা জানিয়েছে এবং আজকের ঘটনার নিন্দা জানাতে একের পর এক টুইট করেছে। তাদের একটি টুইটে লেখা আছে, “আবারও বিজেপি-বিপ্লব প্রমাণ করে যে, ত্রিপুরায় তৃণমূল কংগ্রেসের উপস্থিতি সহ্য করতে পারছেন না তারা! তাদের গুন্ডাবাহিনী আমাদের প্রচারের প্রথম দিনেই আমাদের উপর আক্রমণ করেছিল। আমিতশাহ ই বা এতো চুপ কেন? ত্রিপুরার মানুষের সুরক্ষা ও নিরাপত্তার বিষয়ে কী বলবেন? গণতন্ত্র কোথায়?” টিএমসি নেতা অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ও ঘটনার নিন্দা করেছেন।

আসন্ন পৌর নির্বাচনের দিকে লক্ষ্য রেখে ‘ত্রিপুরার জনো তৃণমূল’ ব্যানারে টিএমসি বৃহস্পতিবার ১২ দিনের রাজনৈতিক প্রচার শুরু করেছে। ত্রিপুরার ৮ টি জেলার ৬০ টি নির্বাচনী এলাকায় এই প্রচার করা হবে। বছরের শুরুর দিকে পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচনে দুর্দান্ত জয়ের পর টিএমসি এখন অন্যান্য ছোট রাজ্যেও পা বাড়ানোর চেষ্টা করছে। টিএমসি প্রাক্তন কংগ্রেস ক্যাবিনেট মন্ত্রী সন্তোষ মোহন দেবের মেয়ে প্রাক্তন কংগ্রেস সাংসদ সুস্মিতা দেবকে ত্রিপুরায় দলীয় বিষয় পর্যবেক্ষক হিসেবে নিয়োগ করেছে। সুস্মিতা দেবকে সম্প্রতি টিএমসিতে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছিল এবং তাকে সংসদের উচ্চকক্ষ রাজ্যসভার জন্য টিএমসির প্রতিনিধি করা হয়েছিল। ১৯৮৮ সালে সুস্মিতা দেবের পিতা ত্রিপুরায় কংগ্রেসের পর্যবেক্ষক হিসেবে নিযুক্ত হয়েছিলেন এবং তার নেতৃত্বে কংগ্রেস স্থানীয় দলের সঙ্গে জোট বেঁধে সিপিআইএমকে পরাজিত করতে সক্ষম হয়।

Comments are closed.