Barak Bulletin is a hyperlocal news publication which features latest updates, breaking news, interviews, feature stories and columns.
Also read in

Barak Champions trophy kickstarts in Dudhpatil

কিশোরের বলে বাউন্ডারি হাঁকালেন কণাদ, যুব দিবসে দুধপাতিলে শুরু হলো বরাক চ্যাম্পিয়ন ট্রফি

টানটান উত্তেজনাপূর্ণ ম্যাচের মাধ্যমে শুরু হলো বরাক চ্যাম্পিয়ন ট্রফি টেনিস বল ক্রিকেট টুর্নামেন্ট। সর্বাঙ্গীণ মানব কল্যাণ সংঘ এবং দূর্গাশক্তি ক্লাবের যৌথ আয়োজনে খেলাটির উদ্বোধন হয় রবিবার। ‌ উদ্বোধন অনুষ্ঠানকে জনপ্রিয় করে তুলতে হাতে ব্যাট এবং বল নিয়ে মাঠে নেমে পড়েন এলাকার বিধায়ক কিশোর নাথ এবং জেলা বিজেপির সাধারণ সম্পাদক কণাদ পুরকায়স্থ। কিশোরের বলে পরপর দুটি চার হাকান কণাদ। এলাকায় ক্রীড়া পরিবেশকে আরও উন্নত করে তুলতে টুর্নামেন্ট আয়োজন করা হয়েছে। যুবকদের উদ্বুদ্ধ করতে হবে তাই যুব দিবস অর্থাৎ স্বামী বিবেকানন্দের জন্মদিনে খেলার উদ্বোধন করা হয়েছে।

মোট ৬৪ দল এক মাস ধরে টুর্নামেন্টে খেলবে। প্রথম পুরস্কার ৫৫, ৫৫৫ টাকা এবং দ্বিতীয় পুরস্কার ২২, ২২২ টাকা। সঙ্গে রয়েছে ট্রফিও। জাতীয় সংগীত এবং প্রদীপ প্রজ্জ্বলনের মাধ্যমে এদিন অনুষ্ঠানটি শুরু হয়। এরপর স্বামী বিবেকানন্দের প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করে শ্রদ্ধা জানান আমন্ত্রিত অতিথিরা। বিধায়ক কিশোর নাথ, বিজেপির জেলা সম্পাদক কনক পুরকায়স্থ সহ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় পুরস্কার প্রাপ্ত শিক্ষক তথা বিবেকানন্দ কেন্দ্র বিদ্যালয় প্রাক্তন অধ্যক্ষ প্রণব ব্রহ্মচারী ও অধ্যাপক অসীম পুরকায়স্থ। তারা প্রত্যেকেই স্বামীজীর জীবনাদর্শ নিয়ে বিভিন্ন কথা তুলে ধরেন।
এরপর ফিতা কেটে পিচ উদ্বোধন করেন আমন্ত্রিত অতিথিরা। পাশাপাশি বিধায়ক কিশোর নাথ এবং কণাদ পুরকায়স্থের মধ্যে এক এক ওভারের ক্রিকেটও হয়। প্রথমে ব্যাট হাতে পিচে নামেন কিশোর, অপরদিকে বল হাতে এগিয়ে আসেন কণাদ। কিশোরের বলে পরপর দুটি চার হাঁকিয়ে দর্শকদের মধ্যে উৎসাহ এনে দেন কণাদ। বিভিন্ন দলের সদস্য সহ এদিন দর্শকরাও ছিল যুব প্রজন্মের। দুই অতিথি অল্প খেলে হাঁপিয়ে গেলেও অনেক বেশি উৎসাহিত হয়েছেন বলে জানান। প্রায় দুই দশক পরে তারা ব্যাট হাতে মাঠে নেমেছেন।

প্রথম ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হয় বিএনসি ইলেভেন বনাম লারসিংপার ইলেভেন। নির্ধারিত ১০ ওভারে দুই দলই ১২৮ রান করে এবং ম্যাচটি টাই হয়। তারপর খেলা হয় সুপার ওভার। বিএনসি ইলেভেনের ৯ রানের জবাবে প্রয়োজনীয় ১০ রান তুলে ম্যাচটি জিতে নেয় লারসিংপার ইলেভেন। ম্যাচের সর্বোচ্চ রান তোলেন ঋণকু বাড়ি, তার স্কোর ৫৯। তবে ম্যান অফ দ্যা ম্যাচ খেতাব জেতেন লারসিংপার ইলেভেনের সুমন দাস। তার স্কোর ৪৭, এছাড়া সুপার ওভারে তিনি একটি ছক্কা হাঁকান।

দ্বিতীয় ম্যাচে শ্রীকোনার শিবাচল বয়েজ দুধপাতিলের সেলিব্রেশন ক্লাবের বিরুদ্ধে একতরফা জয় লাভ করে। ‌শিবাচল বয়েজ ১০ ওভারে ১৮০ রানের বিরাট স্কোর গড়ে তোলে। এর জবাবে সেলিব্রেশন ক্লাব মাত্র ৬৯ রানেই আটকে যায়। ম্যাচের সর্বোচ্চ রান করেন শিবাচল বয়েজের অমর দাস, তার স্কোর ৬৬। ম্যান অফ দ্যা ম্যাচ খেতাবও তিনি পান।

Comments are closed.